বাংলাদেশের জাতীয় বিষয় সমূহ।

 

প্রশ্নঃ স্বাধীনতা যুদ্ধকালে বাংলাদেশকে কয়টি সেক্টরে ভাগ করা হয়? মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য কতজনকে বীর উত্তম খেতাবে ভূষিত করা হয়?

উত্তরঃ স্বাধীনতা যুদ্ধকালে কর্ণেল এমএজি ওসমানী যুদ্ধের সুবিধার্থে রণকৌশল হিসেবে বাংলাদেশকে ১১টি সেক্টরে ভাগ করেন। মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য মোট ৬৭৬ জনকে বীরত্বে খেতাব দেয়া হয়। তন্মধ্যে বীর উত্তম খেতাবে ভূষিত করা হয় ৬৮ জনকে।

 

প্রশ্নঃ বাংলাদেশের নদীগুলোর মধ্যে দীর্ঘতম নদী কোনটি? পদ্মা ও যমুনা কোথায় একত্রিত হয়েছে?

উত্তরঃ বাংলাদেশের নদীগুলোর মধ্যে দীর্ঘতম নদী মেঘনা (দৈর্ঘ্য ৩৩০ কি.মি)। উল্লেখ্য, মেঘনা নদী বাংলাদেশের প্রশস্ততম (১৩,০০০মিটার) ও গভীরতম (২৭ মিটার) নদীও। পদ্মা ও যমুনা একত্রিত হয়েছে রাজবাড়ির গোয়ালন্দে ও  মানিকগঞ্জের শিবালয়ে।

 

প্রশ্নঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়? বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা কমিশন কি নামে আখ্যায়িত?

উত্তরঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ১৯২১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা কমিশন ‘কুদরাত-এ-খুদা শিক্ষা কমিশন’ নামে পরিচিত। এর প্রধান ছিলেন ড. মুহাম্মদ কুদরাত-এ-খুদা। এ কমিশন গঠিত হয় ২৬ জুলাই ১৯৭২।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *